HomeUncategorizedএকসঙ্গে ৪ সন্তানের বাবা হলেন প্রবাসী, পরিবারে খুশির বন্যা

একসঙ্গে ৪ সন্তানের বাবা হলেন প্রবাসী, পরিবারে খুশির বন্যা

print news

মোঃ রাশেদঃ

ঝালকাঠিতে একসঙ্গে চার সন্তানের মা হয়েছেন মুক্তা আক্তার পুতুল (২৪) নামের এক গৃহবধূ। শনিবার (৭ অক্টোবর) দিনগত রাত ২টার দিকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে চার সন্তানের জন্ম দেন তিনি।

মুক্তা আক্তার ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার সোনাউটা গ্রামের বাসিন্দা। তার স্বামী সিদ্দিকুর রহমান থাকেন বাহরাইনে। বছরখানের আগে ছুটি নিয়ে দেশে এসেছিলেন। তিনমাস আগে ছুটি শেষ হওয়ায় আবার পাড়ি জমান বাহরাইনে।

নবজাতকদের মধ্যে তিনজন ছেলে ও একজন মেয়ে। তবে চারজনেরই স্বাভাবিকের তুলনায় ওজন কম। তাদের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণের জন্য নিউনেটাল ওয়ার্ডে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে।

শেবাচিম হাসপাতালের শিশু বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. এম আর তালুকদার মুজিব বলেন, চারটি বাচ্চার মধ্যে একটির ওজন খুব কম। তাকেসহ সব শিশুকেই অবজারভেশনে রাখা হয়েছে। এমনিতে বাহ্যিকভাবে দেখে শিশুদের সবকিছু স্বাভাবিক ও ভালো মনে হচ্ছে।

তবে এখন পর্যন্ত কোনো শিশু শঙ্কামুক্ত বলা যাবে না বলে জানান হাসপাতালের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) মনিরুজ্জামান শহিন। তিনি বলেন, সবকয়টি বাচ্চারই ওজন কম। তাদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এদিকে ঘর আলো করে চার সন্তান জন্ম নেওয়ায় সিদ্দিক-মুক্তা দম্পতির পরিবার ও স্বজনদের মধ্যে খুশির বন্যা বয়ে যাচ্ছে। চার সন্তানের জননী মুক্তার মা মায়া বেগম বলেন, ‘একটা বাচ্চা কিংবা একলগে দুইটা বাচ্চা হওয়ার কথা শুনছি। কিন্তু এখন তো চারটা সন্তান হইলো একলগে। ওগো লইগ্যা আর আমার মাইয়ার লইগ্যা দোয়া করবেন যাতে ওরা ভালো ও সুস্থ থাকে।’

তিনি আরও জানান, ১০ বছর আগে মেয়ে মুক্তার বিয়ে হয় সিদ্দিকুর রহমানের সঙ্গে। তাদের সংসারে ৬-৭ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে।

অন্যদিকে চার সন্তান ও স্ত্রীর খোঁজ নিতে বাহরাইন থেকে সিদ্দিকুর রহমান ফোন দিয়েছেন বলে জানান মুক্তার ভাই শান্ত।।

এই বিভাগের আরো খবর

সর্বশেষ সংবাদ

দশ জনপ্রিয় সংবাদ