Homeসারাদেশচুয়াডাঙ্গাকুড়ুলগাছিতে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ

কুড়ুলগাছিতে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ

print news

নিজস্ব প্রতিবেদক:

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচালে বিএনপি-জামাতের অরাজকতা সৃষ্টি ও ষড়যন্ত্র মোকাবিলার লক্ষ্যে দামুড়হুদা উপজেলার কুড়ুলগাছিতে শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার কুড়ুলগাছি ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এ শান্তি সমাবেশের আয়োজন করে।

ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আ. জলিলের সভাপতিত্বে সমাবেশে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন প্রত্যাশী চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাদুল ইসলাম আজাদ, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মন্জু, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক উপাধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু মো. আ. লতিফ অমল, ঢাকাস্থ চুয়াডাঙ্গা জেলা সমিতির সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মির্জা শাহরিয়ার মাহামুদ লন্টু, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক ড. হামিদুর রহমান এবং সকালের সময় পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক আ. হাকিমসহ ১০ জন নেতা।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, দর্শনা সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি জামাল উদ্দিন, দামুড়হুদা সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, অ্যাড. আবু তালেব, নাটুদাহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুল হক, সীমান্ত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাকির বিশ্বাস, হাসাদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবজালুর রহমান চুন্নু, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল আলম নান্নু, দপ্তর সম্পাদক মাহাবুব বিশ্বাস, কুড়ুলগাছি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কাফিল উদ্দিন টুটুল, কুড়ালগাছি ৮ নং ওয়ার্ড সভাপতি আব্দুল রশিদ বদ্দি, আওয়ামী লীগ নেতা আলি কদরসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন দর্শনা পৌর ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ ফয়সাল।

শান্তি সমাবেশে বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে চলছে। বিভিন্ন ভাতা, চিকিৎসা, শিক্ষা, কৃষিসহ বিভিন্ন মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে চলেছে। বক্তারা দলীয় নেতা-কর্মীদের মনের ক্ষোভ প্রকাশ করে আরও বলেন, যিনি আওয়ামী লীগের দলীয় সংসদ সদস্য হয়েও এই নির্বাচনী এলাকায় ১৬ থেকে ১৭ টি নৌকা ডুবিয়েছেন এমন সংসদ সদস্য বা এমপি আমরা চাই না। আর এই নৌকা ডুবানোর একটাই কারণ বিভিন্ন স্থানে নির্বাচনে পছন্দের প্রার্থী না থাকা। কিন্তু এবার আমরা দলের স্বার্থে এবং দলের নেতা-কর্মীদের স্বার্থে এই আসনের পরিবর্তন চাই।

এই বিভাগের আরো খবর

সর্বশেষ সংবাদ

দশ জনপ্রিয় সংবাদ