HomeUncategorizedহিলি স্থলবন্দর পরিদর্শনে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার মনোজ কুমার

হিলি স্থলবন্দর পরিদর্শনে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার মনোজ কুমার

print news

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম দিনাজপুরে হিলি স্থলবন্দর, ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট ও, ভারতীয় হিলি ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস পরিদর্শন এবং বাংলা হিলি বন্দরের ব্যবসায়দের সাথে মতবিনিময় করেলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত রাজশাহী ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার মনোজ কুমার।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারী) দুপুর ১ টার দিকে তিনি রাজশাহী থেকে দিনাজপুরের হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট পরিদর্শনে আসেন। এ সময় তাকে হিলি ইমিগ্রেশন, কাস্টমস, উপজেলা প্রশাসন, হিলি পোর্ট লিংক লিমিটেড ও বিভিন্ন সংস্থার পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।
এসময় ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। তিনি চেকপোস্ট গেটের শূন্যরেখায় গিয়ে বিজিবি ও বিএসএফের কর্মকান্ড পরিদর্শন এবং কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেন।
এরপরে হাইকমিশনার সীমান্ত দিয়ে ভারতের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে সেখানে ভারতের হিলি ইমিগ্রেশন, কাস্টমসের বিভিন্ন অবকাঠামো ও কার্যক্রম পরিদর্শন এবং কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেন। বিএসএফের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে তিনি আবারও বাংলাদেশে ফিরে আসেন। পরে হিলি ডাকবাংলোয় “হিলি-তুরা করিডোর কমিটির সাথে বৈঠক করেন। বৈঠকে করিডোর বাস্তবায়নেবাধ্যতামূলকভাবে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন ভারতীয় হাইকমিশনার।
এসময় হাকিমপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশিদ হারুন ও ইউএনও অমিত রায়।

এরপর দুপুর দুইটার দিকে হিলি স্থলবন্দরের পানামা পোর্ট লিংক ও হিলি কাস্টমস পরিদর্শনে শেষে কাস্টমস কর্মকর্তা, বন্দরের আমদানি রফতানি কারকদের সাথে আলাদা আলাদা বেঠক করেন। সেখানে ভারতীয় হাইকমিশনার স্ব স্ব সংগঠনের পক্ষ ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।
বৈঠকে দুই দেশের আমদানি রফতানি বিষয়ে সুবিধা অসুবিধা ও ভিসা জটিলতা নিয়ে আলোচনা করা হয়।
এ সময় তিনি বলেন, এই বন্দর দিয়ে কীভাবে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম আরও গতিশীল করা যায় এবং যাত্রী পারাপার বাড়ানো যায় এবং ব্যবসায়ীসহ ভারত গমনে ভিসা জটিলতা দ্রুত নিরসনে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতেই আমার এই সফর। হিলি স্থলবন্দরে বিদ্যমান যেসব সুযোগ-সুবিধা রয়েছে, এগুলোর উন্নয়ন ঘটিয়ে দুই দেশই যেন উপকৃত হয় সে জন্য আজ এই পরিদর্শন। নিজে এসে না দেখলে তো আর বোঝা যাবে না। এখানে যেসব সমস্যা রয়েছে সেগুলো সমাধান করে বন্দরের কার্যক্রম আরও গতিশীল করা হবে। ভিসা জটিলতা নিরসনে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে আশ্বাস দেন ভারতীয় হাইকমিশনার মনোজ কুমার।

হিলি সি এন্ড এফ এজেন্ট এসোসিয়েশন এর সভাকক্ষে সাধারণ সম্পাদক জামিল হোসেন চলন্ত এর সভাপতিত্বে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার মনোজ কুমার।
আরও উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও হিলি স্থলবন্দরের আমদানি রফতানি কারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন, দিনাজপুর চেম্বার অফ কমার্সের সভাপতি রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনুর রেজা শাহীন, ভারত হিলি এক্সপোটার এন্ড ক্লিয়ারিং ফরওয়ার্ডিং এজেন্ট এসোসিয়েশন এর সভাপতি আলাউদ্দিন মন্ডল, সহসভাপতি শ্রী রাজেশ আগারওয়াল, হিলি তুরা করিডোর বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক ডাঃ নব কুমার দাস, প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম, হিলি পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন প্রতাপ প্রমুখ।

হিলি স্থলবন্দর ও কাস্টমস পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন, হিলি কাস্টমস এর উপ-সহকারী কমিশনার বায়োজিদ হোসেন, হিলি পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নেপাল কুমার চক্রবর্তী, পুলিশ পরিদর্শক ওসি তদন্ত এস এম জাহাঙ্গীর আলম, ইমিগ্রেশন ওসি আশরাফুল ইসলাম ও বন্দরের ব্যবসায়ীগন।

এই বিভাগের আরো খবর

সর্বশেষ সংবাদ

দশ জনপ্রিয় সংবাদ